করোনা উপসর্গ থাকলেও অভিনেত্রীকে ভর্তি নিলো না হাসপাতাল

প্রত্যেকে যে কোনো সময়ই করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। সকল ক্ষেত্রে স্থবিরতার সঙ্গে ছোঁয়াচে এ রোগে আতঙ্কিত সবাই। কোভিডে আক্রান্ত হয়ে অন্য সকলের মতো মৃত্যু হয়েছে অনেক চিকিৎসকেরও। আর তাই বিশ্বজুড়েই করোনা রোগীদের চিকিৎসা নিয়েও তৈরি হচ্ছে কম বেশি বিড়ম্বনা। এধরণের বিড়ম্বনার মুখে পড়েছেন বলিউড ও দক্ষিণের জনপ্রিয় নায়িকা শ্রিয়া সরণ। তবে ঘটনাটি ভারতে নয় বরং ঘটেছে স্পেনে।

করোনা উপসর্গ থাকায় স্পেনের হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে ফিরে গেছেন বলিউড এবং দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা শ্রিয়া সরণ। তার স্বামী আন্দ্রে কসচিভের করোনার উপসর্গ দেখা দিলে চিকিৎসা নিতে তারা যান হাসপাতালে। কিন্তু হাসপাতালে যাওয়ার পর সেখানে তাদের তেমন পাত্তাই দেয়নি ডাক্তাররা। অবস্থা এতটাই করুণ যে, হাসপাতালে জায়গা না থাকায় শ্রিয়ার স্বামীর শরীরে করোনা উপসর্গ থাকা সত্ত্বেও তাঁকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

বর্তমানে স্বামী অ্যান্দ্রেইয়ের সঙ্গে স্পেনের বার্সেলোনাতেই রয়েছেন অভিনেত্রী শ্রিয়া সরণ। সেই দেশও মারণ ভাইরাস COVID-19-এর প্রকোপে প্রায় ছারখার হয়ে যাওয়ার জোগাড়। করোনার জেরে কীভাবে বিধ্বস্ত হয়েছে স্পেন, তা চোখের সামনে দেখেছেন ভারতীয় অভিনেত্রী। পরিস্থিতি সামাল দিতে রীতিমতো জেরবার হতে হচ্ছে স্পেনের স্বাস্থ্য পরিকাঠামোকে। করোনা কী হাল করেছে স্পেনের, এহেন যাবতীয় অভিজ্ঞতা বার্সেলোনা থেকেই শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী শ্রিয়া সরণ।

শ্রিয়ার স্বামীর শরীরে করোনার উপসর্গ থাকলেও, সেটি খুব একটা সিরিয়াস না হওয়ায় তাকে গোটা পরিবারসহ কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে৷ চিকিৎসকের কথা মেনে শ্রিয়া এখন বার্সেলোনাতে ঘরবন্দি।

বিগত ১ মাস ধরেই লকডাউন চলছে বার্সেলোনায়। চারদিকে ব্যস্ততা কেমন যেন থমকে গিয়েছে। ফাঁকা রাস্তাঘাট, বন্ধ রেস্তরাঁ, দোকানপাট। চারদিকে কড়া সতর্কতা জারি। যেন এক অচেনা শহর। ওদেশের সরকার নিয়ম বেঁধে দিয়েছে, খুব দরকার পড়লে যেন একেকটা বাড়ি থেকে মাত্র একজনকেই বেরতে দেওয়া হয়। পুলিশি পাহারা সর্বত্র। তাই নির্দেশ অমান্য করার জো নেই!

সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের কাছে এমনটাই জানিয়েছেন শ্রিয়া সরণ। স্বামী অ্যান্দ্রেইয়ের সঙ্গে একদিন বেরিয়েছিলেন বাড়ির অত্যাবশ্যকীয় জিনিসপত্র নিয়ে আসতে। পুলিশের নজর এড়িয়ে গিয়েছেন দুজনে একসঙ্গে। শ্রিয়া জানান, অ্যান্দ্রেইয়ের সঙ্গে তাঁর গায়ের রঙের তফাৎ থাকাতেই পুলিশ সন্দেহ করেনি তাঁদের।

উল্লেখ্য, এর আগে দীপাবলি উপলক্ষে দেশে ফিরলেও পূজোর পর স্পেনে ফিরে যান ‘দৃশ্যম’ অভিনেত্রী। বার্সেলোনায় থাকতে থাকতেই এই মহামারীর মুখোমুখি হয়েছেন অজয় দেবগনের ছবির নায়িকা।সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.