করোনার ভ্যাকসিন মানবদেহে প্রয়োগের অনুমোদন দিলো জার্মানি

করোনা মোকাবিলায় এখন পর্যন্ত জার্মানি সফল। অনেক দেশই কারোনা মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে। সারা বিশ্বেই আতঙ্ক ও অনিশ্চয়তা বিরাজমান। কোথাও কোথাও লকডাউন চলছে। এই পরিস্থিতিতে জার্মানি ছোট ছোট দোকানপাট খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। স্কুলও খুলে দেওয়া হবে আগামী ৩ মে থেকে, পর্যাক্রমে।

এ অবস্থায় মানবদেহে প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল টেস্ট অনুমোদন দিয়েছে জার্মানি। বুধবার (২২ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে এ কথা জানায় দেশটির ভ্যাকসিন নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

করোনা প্রতিরোধে তৈরি করা বিশ্বে এটি চার নম্বর পরীক্ষা। জার্মান বায়োটেক কোম্পানি বায়োনটেক এ ভ্যাকসিন উদ্ভাবন করে।

তুর্কি গণমাধ্যম ইয়েনি শাফাক জানায়, প্রাথমিক পর্যায়ে সুস্বাস্থ্যের অধিকারী ২০০ জনের ওপর এটি প্রয়োগ করা হবে। যাদের বয়স ১৮-৫৫ বছর। দ্বিতীয় পর্যায়ে অন্যদের সঙ্গে এই রোগে যাদের ঝুঁকি বেশি তাদের ওপর প্রয়োগ করা হবে।

বায়োনটেক জানায়, ফার্মা জায়ান্ট ফাইজারের সঙ্গে যৌথভাবে এটি তারা তৈরি করেছে। এর নাম দেয়া হয়েছে বিএনটি১৬২।

যুক্তরাষ্ট্রে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষা করার পরিকল্পনা করা হয়েছিল।একবার মানবদেহে পরীক্ষার জন্য কর্তৃপক্ষ অনুমতি দিয়েছিল।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!