করোনার উৎস খুঁজতে চীন যাচ্ছে ডব্লিউএইচও প্রতিনিধিদল

চীন থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে।মহামারি করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা আজ মঙ্গলবার রাতে বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ১০ হাজারের বেশি।
আর কোভিড-১৯ এর উৎস সম্পর্কে আরও ভালোভাবে জানতে চীনে একটি প্রতিনিধিদল পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। গতকাল সোমবার এ কথা জানিয়েছেন সংস্থাটির প্রধান তেদরোস আধানম গেব্রেয়াসুস।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার প্রথমবারের মতো চীনে নিজেদের প্রতিনিধিদল পাঠানোর কথা জানিয়েছে ডব্লিউএইচও। সংস্থাটির প্রধান এ সম্পর্কিত বিবৃতিতে বলেন, ‘ভাইরাসের উৎস সম্পর্কে জানাটা খুব, খুব গুরুত্বপূর্ণ। সংক্রমণ শুরুর বিষয়সহ ভাইরাসটি সম্পর্কে যখন সবকিছু জানা যাবে, তখনই এটি নিয়ে কাজ করাটা সম্ভব হবে। আগামী সপ্তাহেই এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানতে চীনে একটি দল পাঠাব আমরা।’

তেদরোস আধানম গেব্রেয়াসুস বলেন, ‘এই পরিদর্শনের মাধ্যমে আমরা ভাইরাসটি কীভাবে (সংক্রমণ) শুরু হয়েছিল তা জানার পাশাপাশি এ বিষয়ে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রস্তুতি কেমন হওয়া উচিত, সে সম্পর্কেও ভালো ধারণা পাব বলে আশা করি।’

উল্লেখ্য, গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে ছড়াতে শুরু করেছিল নতুন করোনাভাইরাসটি। এর সংক্রমণে সৃষ্ট রোগ কোভিড-১৯ পরে সারা বিশ্বে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ে। গত ছয় মাসে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে বিশ্বের পাঁচ লাখের বেশি মানুষ মারা গেছে। বৈশ্বিক এ মহামারিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতির শিকার হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। গত কয়েক মাস ধরে দেশটির ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছে এর উৎস নিয়ে চীনের বিরুদ্ধে তদন্ত চালানোর কথা বলে এলেও তাতে সাড়া দেয়নি সংস্থাটি। এতে ট্রাম্প প্রশাসন সংস্থাটিকে ‘চীনের হাতের পুতুল’ আখ্যা দেয়। যুক্তরাষ্ট্র একই সঙ্গে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় অর্থায়ন বন্ধের ঘোষণা দেয়।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!