করোনাতেও ইয়েমেনে ২ শতাধিক বিমান হামলা সৌদির

প্রাণঘাতী করোনার বিরুদ্ধে লড়ছে গোটা বিশ্ব। সারা বিশ্বেই এখন মানুষ ঘরবন্দি। এ অবস্থাতেও প্রতিবেশি ইয়েমেনে বিমান হামলা অব্যাহত রেখেছে সৌদি আরব। সৌদি নেতৃত্বাধীন আরব জোট গত সপ্তাহে দারিদ্র্যপীড়িত ইয়েমেনের ওপর ২০০ বারের বেশি বিমান হামলা চালিয়েছে।
আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম থেকে এ খবর জানা গেছে।

করোনায় বিপর্যস্ত বিশ্বে সৌদি আরব যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দিয়েছিল। তবে বৃহস্পতিবার ইয়েমেনি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিয়ি তার দেশে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট বিমান হামলা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন।
মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলমানারকে জেনারেল ইয়াহিয়া বলেন, গত ৯ এপ্রিল যুদ্ধবিরতি ঘোষণার পর সৌদি জোট ইয়েমেনের বেশ কয়েকটি শহরে ৩২ স্থল ও ২৩০টি বিমান হামলা চালিয়েছে। দফায় দফায় উত্তরাঞ্চলীয় আল-যাওফ, মধ্যাঞ্চলীয় মারিব ও বাইদা প্রদেশ এবং দক্ষিণাঞ্চলীয় তায়িজপ্রদেশে এসব হামলা চালানো হয়।

এদিকে যুদ্ধবিরতি ঘোষণার পরও সৌদি আরবের এসব হামলার জবাব দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইয়েমেন। দেশটি ঘোষণা দিয়েছে দেশকে রক্ষায় এব্যাপারে বাস্তবভিত্তিক পদক্ষেপ নেবে ইয়েমেনের সামরিক বাহিনী।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা ইয়েমেনের রাজধানী সানাসহ গোটা দেশ দখল করলে দেশটিতে সংঘাত শুরু হয়। ২০১৫ সালে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট হুতিদের দমনে অভিযান শুরু করলে সহিংসতার পরিমাণ বেড়ে যায়। সংঘাত থেকে যুদ্ধে রূপ নেওয়া ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে হাজার হাজার বেসমারিক ইয়েমেনি মারা যাচ্ছে। এছাড়া মানবিক বিপর্যয়ের শিকার লাখ লাখ ইয়েমেনি অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন।

ইয়েমেন যুদ্ধের পাঁচ বছর অতিক্রান্ত হল। সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের হামলায় গত পাঁচ বছরে ইয়েমেন বিরান ভূমিতে পরিণত হয়েছে। বহু সাধারণ মানুষ প্রাণ হারিয়েছে।

২০১৫ সালের ২৬ মার্চ সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইয়েমেনের বিরুদ্ধে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ শুরু করে। যুদ্ধবাজ হিসেবে পরিচিত বর্তমান সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান তখন দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন এবং তখনও তিনি যুবরাজের পদে অধিষ্ঠিত হননি। পরবর্তী রাজার পদ লাভের আশায় প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে তিনি ইয়েমেনের বিরুদ্ধে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ শুরু করেন। যুদ্ধ শুরুর মাধ্যমে তিনি সৌদি পররাষ্ট্র নীতিকে রক্ষণশীল অবস্থান থেকে সরিয়ে এনে আক্রমণাত্মক অবস্থানে নিয়ে গেছেন

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!