কভিড-১৯ ভার্চুয়াল কমিউনিটি এসিসটেন্স অনুষ্ঠান

২৬ জুন  ২০২০, শুক্রবার জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের সামনে বেলা ১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত করোনাভাইস এর ফ্রি এন্টি বডি  টেষ্ট করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির উদ্যোগে আয়োজিত ‘কভিড-১৯ ভার্চুয়াল কমিউনিটি এসিসটেন্স অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে বক্তারা বলেন, প্রাণঘাতি করোনার মহামারীতে সংগঠনিটি যেভাবে মানবাতার সেবায় এগিয়ে এসেছে এবং বিভিন্ন কর্মসূচী অব্যাহত রেখেছে তা কমিউনিটির সামাজিক সংগঠনগুলোর জন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।  

ভার্চুয়াল আলোচনায় অংশ নেন ডাক্তার, আইনজীবি, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, রিয়েল এস্টেট বিশেষজ্ঞ সহ বিভিন্ন পর্যায়ের কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে আলোচনায় অংশ নেন, মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. জিয়াউদ্দিন আহমেদ, সাপ্তাহিক পরিচয় সম্পাদক নাজমুল আহসান, সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ও ফ্রেন্ডস সোসাইটির উপদেষ্টা ডা. ওয়াজেদ এ খান, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার পরিচালনা কমিটির সেক্রেটারী মনজুর আহমেদ চৌধুরী, রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী জান ফাহিম এবং ইন্স্যুরেন্স ব্যবসায়ী ও ফ্রেন্ডস সোসাইটির উপদেষ্টা শাহ নেওয়াজ এবং সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোস্তফা আল আমিন (রাসেল)।

ডা. জিয়াউদ্দিন আহমেদ বলেন, করোনাভাইরাস একটি অজ্ঞাত এবং মারাত্বক ভাইরাস। দ্বিতীয় দফায় এই ভাইরাসের প্রাদূর্ভাব হলে তা আরো ভয়াবহ হতে পারে। তবে আশার আলো নিউইয়র্কে এই ভাইরাস নিয়ন্ত্রিত হয়েছে। যেহেতু এই ভারাইরাসের ঔষুধ এখনো আবিষ্কৃত হয়নি, তাই আমাদেরকে সামাজিক দূরত্ব ও সবাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে সবাইকে। করোনাভাইরাস মুক্ত হতে আইস্যুলেন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই পর্যাপ্ত পরিমান অক্সিজেন থাকতে হবে। 

নাজমুল আহসান বলেন, যেসব কমিউনিটির সকল কর্মকর্তা ও সদস্য স্বতস্ফুর্তভাবে কভিড-১৯ এ মানবতার সেবায় কাজ করেছে,  সেসব সংগঠনের মধ্যে প্রথমেই জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি, বাংলাদেশ সোসাইটি ও জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার এর নাম বলতে হয়। তিনি বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ সহ করোনায় মৃত্যুবরণকারী সকলের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করেন।  নিউইয়র্কের প্রাইমারী নির্বাচন ও সেন্সাসে অংশ নেয়ার উপর গুরুত্বারোপ করে নাজমুল বলেন, এতে বাংলাদেশীরা যত বেশী অংশ নেবেন মূলধারায় কমিউনিটির গুরুত্ব তত বৃদ্ধি পাবে।

ডা. ওয়াজেদ এ খান তার আলোচনায় দেশ ও প্রবাসে করোনা ভাইরাসে মৃত্যুবরণকারীদের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেন। 

জান ফাহিম বলেন, বাসা-বাড়ীর ভাড়া এবং মর্টগেজ অবশ্যই পরিশোধ করতে হবে। এগুলোর মাফ নেই। তবে পরিশোধের জন্য সময় পাওয়া যাবে। তিনি জানান,  মর্টগেজ পরিশোধে ব্যাংক নানান সুবিধা দিচ্ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে যারা ভাড়া পরিশোধ করতে পারছেন না, তাদের বাড়িওয়ালাদের সাথে চুক্তিতে যাওয়া উচিৎ বলে তিনি মন্তব্য করেন। 

মনজুর আহমেদ চৌধুরী সিলেট সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন কামরান ও বাংলাদেশ সোসাইটির সবাপতি কামাল আহমেদ সহ কভিড-১৯ এ মৃত্যুবরণকারীদের স্মরণ করেন এবং সবার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। 

শাহ নেওয়াজ ইন্স্যুরেন্স এর ব্যাপারে বলেন, ইন্স্যুরেন্স মওকুফ করা হয়নি, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে শুধুমাত্র কয়েক মাসের জন্য প্রিমিয়াম রিলিভ দেয়া হয়েছে।  তিনি জানান, ২৬ জুন শুক্রবার জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের সামনে বেলা ১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ফ্রী করোনাভাইস ও এন্টি বডি টেষ্ট করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

সৈয়দ মোস্তফা আল আমীন রাসেল বলেন, ফ্রেন্ডস সোসাইটির পক্ষ থকে ১০০০ এর উপরে পরিবারের মাঝে খাদ্র-সামগ্রী ও ঈদ উপহার পৌছানো হয়েছে ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!