এখন গোয়েন্দাদের নজর চার অভিনেত্রীর ব্যাংক একাউন্টে

জনপ্রিয় বলিউড তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর নড়েচড়ে গেছে বলিউডের বিশ্বাসের সব ভিত। সুশান্তের মৃত্যুর পর প্রথম আলোচিত বিষয় ছিলো রুপালিজগতের স্বজনপোষণ। সেখান থেকে বিষয়টি এসে ঠেকেছে মাদকে! আর মাদক প্রসঙ্গ আসতেই এবার একের পর এক জড়াচ্ছে বলিউডের তাবড় সব রথী-মহারথীদের নাম। প্রথমে ছিলেন শুধু রিয়া চক্রবর্তী। এরপর একে একে আসলো বলিউডে রথী-মহারথীদের নাম। বর্তমানে সামনে এসেছে দীপিকা পাড়ুকোন, শ্রদ্ধা কাপুর, সারা আলী খান এবং রাকুলপ্রীত সিংয়ের নামও। ইতিমধ্যেই নার্কোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)’র জেরার মুখে একে একে হাজির হয়েছেন এই চার অভিনেত্রী। তদন্তের স্বার্থে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তাদের মোবাইল। জানা গেছে, এবার ওই অভিনেত্রীদের আর্থিক আয়-ব্যয়ের হিসাব খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা।

ভারতীয় গণমাধ্যম সুত্রে জানা গেছে, এই চার অভিনেত্রী গত ৩ বছরে ঠিক কত টাকা আয় করেছেন এবং কত টাকা ব্যয় করেছেন তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এমন কি তারা তাদের ক্রেডিট কার্ড ঠিক কোন কোন জায়গায় ব্যবহার করেছেন তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। মূলত মাদক কেনাবেচার ক্ষেত্রে তারা টাকা লেনদেন করেছেন কিনা, তা খতিয়ে দেখতেই এবার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের দিকে নজর দিয়েছেন তদন্তকারীরা।

উল্লেখ্য, এনসিবি’র জেরায় দীপিকা, শ্রদ্ধা ও সারা- তিন অভিনেত্রীই নিজেরা মাদক নেননি বলেই দাবি করেছেন। তবে দীপিকা পাড়ুকোন মাদক সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। শ্রদ্ধা কাপুর জানিয়েছেন তিনি যে পার্টিতে গিয়েছিলেন সেখানে মাদক ছিল। তবে তিনি মাদক সেবন করেননি। সারা আলী খান জানিয়েছেন, ‘কেদারনাথ’ ছবির শুটিংয়ের সময় তিনি সুশান্ত সিং রাজপুতকে মাদক নিতে দেখেছেন। কিন্তু তিনিও কোনরকম মাদক নেননি।

প্রসঙ্গত, শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এনসিবি জেরা করে দীপিকা পাড়ুকোন, শ্রদ্ধা কাপুর ও সারা আলী খানকে। জানা গেছে, জেরার সময় নাকি বলিউডের বর্তমানের এক নম্বর নায়িকা তিন বার কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এর জন্য এনসিবির কর্মকর্তাদের কাছে নাকি ধমকও খেয়েছেন। এনসিবি কর্মকর্তারা তাকে পাঁচ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করে। অন্যদিকে সারা ও শ্রদ্ধা প্রায় ছয় ঘণ্টা ধরে জেরা করা হয়। দীপিকা, শ্রদ্ধা ও সারা’র ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে তদন্ত কর্মকর্তারা।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!