উদ্বেগ- উৎকন্ঠার মধ্যেই সন্তানদের স্কুলে পাঠাবে ট্রুডো দম্পতি

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের শুরুর প্রাক্কালে গত মার্চ মাস থেকে কানাডার স্কুলগুলো বন্ধ হয়ে যায়। কয়েকমাস বন্ধ থাকার পর পুনরায় স্কুল চালু হয়েছে কানাডায়।শিক্ষার্থীদের নিরাপদে রাখতে ইতোমধ্যেই নানা পদক্ষেপ নিয়েছে কানাডা সরকার ও কানাডার প্রাদেশিক সরকারের কর্তৃপক্ষ। উদ্বেগ উৎকন্ঠার মধ্যেই অভিভাবকরাও তাদের আদরের প্রিয় সন্তানদের স্কুলে ফেরত পাঠাতে শুরু করেছে।

এমনকি প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এবং তার স্ত্রী সোফি গ্রেগোয়ার ট্রুডো তাদের বাচ্চাদের স্কুলে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

যদিও ট্রুডো স্বীকার করেছেন, তারা এখনও এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে লড়াই করছেন।প্রধানমন্ত্রীর সন্তানরা অন্টারিওর পাবলিক স্কুলে পড়েন। সন্তানদের স্কুলে ফেরত পাঠানো হবে কি না সেই বিষয়টি তাদের গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল বলে মন্তব্য করেন ট্রুডো।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় কানাডার স্থানীয় গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছে যে, আপাতত ট্রুডোর তিন সন্তান জেভিয়ার, এলা গ্রেস এবং হ্যাড্রিয়েন স্কুলে পড়াশোনা করছে।

আগস্টের মাঝামাঝি সময়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো বলেছিলেন, স্কুলে ফিরে আসতে হবে কিনা সে সম্পর্কে তার পরিবার ‘অত্যন্ত সক্রিয় আলোচনার’ মধ্যে ছিল।

আমি জানি যে প্রচুর অভিভাবকরা তাদের স্থানীয় স্কুল এবং স্কুল বোর্ডের পরিকল্পনা কী হতে চলেছে তা যতœ সহকারে দেখছেন। এবং আমার সহ অনেক পরিবারে অনেক প্রতিচ্ছবি রয়েছে, সেপ্টেম্বর ঘুরে যখন কী ঘটবে, সে সম্পর্কে তিনি বলেছিলেন।

তিনি আরো বলেছিলেন, আমরা স্কুলের পরিকল্পনা কী তা পর্যবেক্ষণ করছি, আমরা শ্রেণির আকারগুলি খুঁজছি, আমরা তাকিয়ে আছি যে বাচ্চারা মুখোশ পরা সম্পর্কে কেমন অনুভব করছে।

কানাডার কনজারভেটিভ দলের নেতা এরিন ও’টুল এবং তার স্ত্রী তাদের দুটি বাচ্চাকে স্কুলে ফেরত পাঠানোর পরিকল্পনা করেছেন।

ও’টুল কানাডার স্থানীয় গণমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বলেছেন, আমাদের স্কুলগুলি এবং যে পরিকল্পনাগুলি করা হচ্ছে তার প্রতি আমার অনেক আস্থা রয়েছে।

ও’টুল আরো বলেন বাচ্চাদের প্রতি বিচ্ছিন্নতা ‘খুব কঠোর’ ছিল এবং তিনি মনে করেন যে শিক্ষার্থীরা যথাযথ সুরক্ষা প্রোটোকল রেখে যথাসময়ে স্কুলে ফিরে আসবে। বাচ্চারা যদি নির্জন হয়ে পড়ে এবং সামাজিক যোগাযোগ না করে তবে আমাদের মানসিক সুস্থতার উদ্বেগ রয়েছে। সুতরাং আসুন স্যানিটেশন করি, আসুন সঠিক দূরত্ব করি, আসুন এটি ঠিক করি, তবে আমাদের নিশ্চিত করা দরকার বাচ্চারা স্কুলে রয়েছে।

কানাডার অন্টারিও প্রদেশ এবং আলবার্টা প্রদেশের অ্যাডভোকেটরা জোর দিয়ে বলেছেন যে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের নিরাপদ রাখতে প্রাদেশিক সরকারকে ছোট শ্রেণির আকারে বিনিয়োগ করা দরকার।

ইতিমধ্যে স্কুলগুলি নিরাপদে পুনরায় খোলাতে সহায়তা করতে ফেডারেল সরকার ২ বিলিয়ন ডলার তহবিল ঘোষণা করেছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!