ইউরোপীয় কোন দেশে হিজবুল্লাহর তৎপরতা নেই: সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ

জার্মানি লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন- হিজবুল্লাহকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার যে পদক্ষেপ নিয়েছে তার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এই আন্দোলনের মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ।

তিনি গতকাল (সোমবার) বিকেলে লেবাননের টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক ভাষণে একথা উল্লেখ করে  বলেন, জার্মানির এ সিদ্ধান্ত প্রমাণ করে দেশটি আমেরিকার চাপের মুখে এ কাজ করেছে এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলকে সন্তুষ্ট করা হচ্ছে এর মূল লক্ষ্য।

ইউরোপীয় দেশগুলোর পাশাপাশি বিশ্বের কোনো দেশে হিজবুল্লাহর কোনো শাখা বা তৎপরতা না থাকার কথা জানিয়ে সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ বলেন, তবে তিনি মনে করেন অন্যান্য ইউরোপীয় দেশও জার্মানির দেখাদেখি হিজবুল্লাহকে নিষিদ্ধ করবে। তিনি বলেন, যখন কোনো দেশে হিজবুল্লাহর উপস্থিতি নেই তখন সেই দেশে হিজবুল্লাহকে নিষিদ্ধ করার কোনো অর্থ হয় না।

সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ বলেন, “যখন আমি বলছি জার্মানি বা কোনো ইউরোপীয় দেশে আমাদের উপস্থিতি নেই তখন শতভাগ নিশ্চিত হয়েই তা বলছি।” তিনি জার্মানিতে বসবাসরত লেবাননি নাগরিকদের অধিকার রক্ষা করতে বৈরুতের প্রতি আহ্বান জানান।

জার্মান সরকার গত ৩০ এপ্রিল হিজবুল্লাহকে সন্ত্রাসী আখ্যা দিয়ে দেশটিতে এই সংগঠনের তৎপরতা নিষিদ্ধ করে। এরপর জার্মান পুলিশ সেদেশের বিভিন্ন স্থানে হানা দিয়ে হিজবুল্লাহর সঙ্গে যোগসাজশের সাজানো অভিযোগে বেশ কিছু ব্যক্তিকে আটক করে

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!