ইইউ দেশগুলো মে’তে কাজে ফিরবে

করোনার মহামারি থেকে বাঁচতে চেষ্টার কোন ত্রুটি রাখছে না গোটা বিশ্ব।এদিকে, ইউরোপে শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা আশানুরূপ কমে আসায় ইইউ দেশগুলো লকডাউন থেকে বেরিয়ে আসতে চলেছে। মে মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকেই স্বাভাবিকতা ফিরতে পারে বলে ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। ইতালিতে আগামী ৪ মে থেকেই ধীরে ধীরে তুলে দেয়া হবে বিধি-নিষেধ। প্রাথমিকভাবে, জনসাধারণকে নিজেদের এলাকার মধ্যে চলাফেরার অনুমতি দেয়া হবে। ছোটখাটো সামাজিক অনুষ্ঠানের ছাড়পত্র দেয়া হবে। লোকজন তাদের আত্মীয়বাড়ি যাওয়ার অনুমতি পাবেন ৪ মে থেকে। শেষকৃত্যের অনুমতি দেয়া হচ্ছে। অ্যাথলিটদের ট্রেনিং শুরু করার অনুমতি দেয়া হবে। ৪ মে থেকেই খুলবে বার এবং রেস্তরাঁগুলো। যেসব দোকান এখনও খোলেনি সেগুলি ১৮ মে থেকে খোলা হবে। ১৮ মে থেকেই অনুশীলন শুরু করতে পারবে খেলার দলগুলো। ১ জুন থেকে খুলে যাবে সেলুন এবং বিউটি পার্লারগুলি। রাশিয়ায় সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় লকডাউন ১১ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।
এদিকে গতকাল রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত বিশ্বে ৩০ লাখ ৯০ হাজার ০০১ জন শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছে ২ লাখ ১২ হাজার ৯৩৫ এবং সুস্থ হয়েছেন ৯ লাখ ৩৫ হাজার ৮৭৬ জন। গতকাল আরো মারা গেছেন- যুক্তরাজ্যে ৫৪৬, স্পেনে ৩০১, যুক্তরাষ্ট্রে ২৫২, বেলজিয়ামে ১২৪, মেক্সিকোয় ৮৩, সুইডেনে ৮১, রাশিয়ায় ৭৩, ইরানে ৭১, ব্রাজিলে ৬০, হল্যান্ডে ৪৮, জার্মানিতে ৩৫, অস্ট্রিয়া ও পর্তুগালে ২০, ফিলিপাইন ও ইউক্রেনে ১৯ এবং সুইজারল্যান্ডে ১২ জন।
ইতালির পাশাপাশি ইউরোপের আরও কয়েকটি দেশ লকডাউন শিথিল করার কথা ভাবছে। মারাত্মকভাবে সংক্রমিত আরেক দেশ স্পেনও ধীরে ধীরে লকডাউন শিথিল করছে। ফ্রান্সেও ইতিমধ্যেই অনেক কিছুতে ছাড় দেয়া হয়েছে। সুইজারল্যান্ডেও শিথিল হচ্ছে লকডাউন। ব্রিটেনেও উল্লেখযোগ্য হারে কমছে করোনা সংক্রমণের গতি। ইতিমধ্যেই করোনা যুদ্ধ জয় করে কাজে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। দ্রুত ব্রিটেনেও লকডাউন তোলা নিয়ে আলোচনা শুরু করেছেন তিনি। উল্লেখ্য ইতালি, স্পেনের মতো ব্রিটেনেও মহামারির আকার নিয়েছিল করোনা। তবে এখন পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে।
অস্ট্রেলিয়া তার প্রথম পদক্ষেপে লকডাউন সহজ করায় বন্দি সমুদ্র সৈকতে ফিরে এসেছে সার্ফাররা। নিউজিল্যান্ডে লকডাউন সহজ করেছে; এইচকে সরকারি কর্মচারীরা আবার কাজ শুরু করবেন। সিঙ্গাপুর এপ্রিলের শুরু থেকে দৈনিক টেস্টিং ক্ষমতা দ্বিগুণ করেছে।
জার্মানিতে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা পাঁচ সপ্তাহেরও বেশি সময়ে প্রথমবারের মতো এক হাজারের নীচে নেমেছে, আর স্পেনে নতুন সংক্রমণ ও প্রাণহানি কমেছে।
১৩০ কোটি মানুষের ভারতে কঠোর শাটডাউন ৩ মে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। কী কী বিধিনিষেধ বজায় রাখতে হবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশের ২৮টি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে আলোচনা করেছেন। মোদি বলেন, আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি এখনও শেষ হয়নি।
সোমবার সরকারি তথ্যে দেখা গেছে, চীনের পর এশিয়ায় সর্বাধিক সংখ্যক সংক্রমণ হওয়ার বিষয়টি ভারত জানিয়েছে। দেশটিতে এ যাবৎ ৯৩৯ জন মারা গেছে। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, ভারত অনেক দেশের তুলনায় মাথাপিছু অনেক কম পরীক্ষা করছে এবং ভাইরাসটি কম ধরা পড়েছে। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, মহামারী শুরুর আগে থেকে ধুঁকতে থাকা ভারতের অর্থনীতি তরুণ জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থান আরও দুর্লভ করে তুলেছে।
প্রতিবেশী পাকিস্তানও অর্থনৈতিক বেদনা কমাতে চেয়ে বলেছে যে, তারা ৫০.৯৯ বিলিয়ন রুপি (৩১৬.৫৬ মিলিয়ন ডলার) প্যাকেজের অংশ হিসাবে আগামী তিন মাসের জন্য ৩৫ লাখ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ের বিদ্যুত বিল পরিশোধ করবে।
সরকার দেশব্যাপী লকডাউন ৯ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে। তবে, সুরক্ষার নির্দেশিকাতে কিছু শিল্প ও বাণিজ্যিক কার্যক্রম পুনরায় শুরু করার সুযোগ দেয়ার সাথে সাথে লক্ষ্যযুক্ত ট্র্যাকিং এবং টেস্টের মাধ্যমে এটি একটি ‘স্মার্ট লকডাউন’-এ রূপান্তর করছে।
ভারত মহাসাগর দ্বীপপুঞ্জের শ্রীলঙ্কা এবং মালদ্বীপের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে মহামারীটি। এ মাসের শুরুর দিকে রাজধানী কলম্বোর নিকটে একটি ঘাঁটিতে প্রথম শনাক্তের পর শ্রীলঙ্কায় গত সোমবার করোনাভাইরাসে নতুন ৪৫ জন শনাক্ত হয়েছে। সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে দেশের ৫৬৭ জন শনাক্তের এক চতুর্থাংশই নৌবাহিনীর।
মালদ্বীপে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে রাজধানী মালেতে ঘন ডরমেটরিতে বাস করা অভিবাসী শ্রমিকদের মধ্যে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সংক্রমণ বেড়েছে। দেশে আক্রান্ত ২শ’র মধ্যে বিশাল সংখ্যক বাংলাদেশী অভিবাসী শ্রমিক।
দক্ষিণ এশিয়ায় করোনাভাইরাসের পরিসংখ্যানঃ
ভারতে শনাক্ত ২৯,৪৫১, মৃত ৯৩৯ জন। পাকিস্তানে শনাক্ত ১৪,০৭৯ মৃত ৩০১, আফগানিস্তানে শনাক্ত ১৮২৮ মৃত ৫৮ জন, শ্রীলঙ্কায় শনাক্ত ৫৯৬, মৃত ৭ জন, বাংলাদেশে শনাক্ত ৬,৪৬২, মৃত ১৫৫ জন, মালদ্বীপে ২৪৫, নেপালে ৫৪ এবং ভুটানে ৭ জন শনাক্ত হলেও কোন মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!