আমেরিকায় ভয়ঙ্কর ‘মগজ খেকো’ অ্যামিবার সন্ধান, সতর্ক করলেন বিজ্ঞানীরা

ডেস্ক রিপোর্ট:

মহমারী করোনাভাইরাসের মধ্যেই আমেরিকার ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে এক প্রকার বিরল অ্যামিবার সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এককোষী মুক্তজীবী এই প্রাণীটি মানুষের শরীরে ঢুকতে পারলে ধ্বংস করে দেয় মস্তিষ্ক। ‘নাইজেলরিয়া ফ্লাওয়ারি’ (Naegleria fowleri) কে বিজ্ঞানীরা ‘মগজ-খেকো’ অ্যামিবাও বলে থাকেন। এ নিয়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে দেশজুড়ে। খবর সিএনএন।

বিগত ২০১২ সালে পাকিস্তানে সন্ধান মেলে   ‘নাইজেলরিয়া ফ্লাওয়ারি’ নামের এই অ্যামিবার। সেসময় অ্যামিবার কারণে অনেক মানুষের মৃত্যু হয়। 

বিজ্ঞানীরা বলছেন, নাইজেলরিয়া ফ্লাওয়ারি’ পানির মাধ্যমে ছড়ায়। এটি সাধারণত সাঁতারের সময় নাক দিয়ে প্রবেশ করে। মস্তিষ্কে ঢুকে স্নায়ু ধ্বংস করে ফেলে। নদী, পুকুর, হ্রদ ও ঝরনার পানি যেখানে উষ্ণ, সেখানে এ ধরনের অ্যামিবা বাস করে। এছাড়া শিল্পকারখানার উষ্ণ পানি পড়ে এমন মাটি ও সুইমিংপুলেও এ ধরনের অ্যামিবার দেখা মেলে। এ অ্যামিবা মস্তিষ্কে ঢুকে পড়লে মারাত্মক কোনও উপসর্গ দেখা যায় না। প্রাথমিক অবস্থায় লক্ষণ থাকে হালকা মাথাব্যথা, ঘাড়ব্যথা, জ্বর ও পেটব্যথা।

১৯৬২ সাল থেকে ফ্লোরিডায় অ্যামিবার ৩৭টি ঘটনার কথা শোনা গেছে। ‘নাইজেলরিয়া ফ্লাওয়ারি’ পাওয়া গেছে হিলসবোরো কাউন্টিতে।

মারাত্মক ক্ষতিকর এই অ্যামিবা থেকে দূরে থাকতে সাঁতারের সময় বিশেষ সাবধানতা অবম্বলন করতে বলেছেন ফ্লোরিডার বিজ্ঞানীরা। নাক দিয়ে যেন কোনোভাবে পানি প্রবেশ করতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

যুক্তরাজ্যের ফ্লোরিডার স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যানুযায়ী, গোটা দেশে অ্যামিবায় এখন পর্যন্ত ১৪৩ জন সংক্রমিত হয়েছেন। এর মধ্যে মাত্র চারজন বাঁচতে পেরেছেন!

প্রসঙ্গত, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে আমেরিকা। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের ছোবলে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ২৯ লাখ ৩৫ হাজার ৭৭০ মানুষ। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৩১৮ জনের। করোনা মোকাবিলায় যখন টালমাটাল অবস্থা আমেরিকার। ঠিক এমন সময়  সন্ধান মিলর এক ভয়ঙ্কর প্রাণীর।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!