আতঙ্ক নয় সতর্কতাই সমাধান

করোনাভাইরাস থেকে বাচার জন্য আতঙ্ক নয় প্রয়োজন সতর্কতা। চীনে ব্যাপকভাবে মানুষ এই ভাইরাসে মারা গেলেও অন্যান্য দেশে তা এখনো এতো ব্যাপক নয়। কিন্তু সংবাদ মাধ্যমের প্রচারে জনমনে এ নিয়ে বেশ ভীতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে করোনাভাইরাস অন্যান্য ভাইরাসের মতই একটি ভাইরাস। অন্যান্য ভাইরাস যেভাবে ছড়ায় করোনাভাইরাসও একইভাবে ছড়ায়। তাই এ থেকে বাঁচতে সচেতনতা বেশ ভূমিকা রাখবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওয়েবসাইটে যেসব পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলা হয়েছে সেগুলো হল-

  • নিয়মিত জীবাণুনাশক দিয়ে হাত মাজা। অথবা সাবান পানি দিয়ে হাত ধৌত করা। সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার সময় কমপক্ষে বিশ সেকেন্ড ঘষামাজা করা। বিশেষ করে বাথরুম ব্যবহারের পর, খাবার খাওয়ার আগে, নাক পরিষ্কার করার পূর্বে বা হাঁচি দেওয়ার পরে। এতে করে হাত যদি কোনো জীবাণু স্পর্শ করে থাকে তা পরিষ্কার হয়ে যাবে।
  • চোখ, নাক এবং মুখে হাত দিয়ে স্পর্শ না করা। কেননা চোখ, নাক এবং মুখ দিয়েই জীবাণু আমাদের শরিরের ভিতরে পবেশ করতে পারে।
  • অসুস্থ কারো সাথে আলাপ করতে কমপক্ষে তিন ফুট দূরত্ব বজায় রাখা। বিশেষত যাদের ঠান্ডা লেগেছে এবং হাচি দিচ্ছে। কেননা কেউ যখন হাচি দেয় তখন ছোট ছোট জীবাণু তরল আকারে আশপাশে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে তা নিকটবর্তী আরেকজনের নিঃশ্বাসের সাথে তার শরিরে প্রবেশ করতে পারে
  • যদি সর্দি-জ্বর বা কাশি দেখা দেয় তবে দেরি না করে নিকটবর্তী স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে যান। চিকিৎসা নিন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!