অভিনেত্রী শ্রাবন্তীকে বাংলাদেশ থেকে অশ্লীল মেসেজ, হাইকমিশনে অভিযোগ

ওপার বাংলার অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়।বাংলাদেশের একটি নম্বর থেকে দিনের পর দিন অশ্লীল সব মেসেজ (খুদে বার্তা) পাচ্ছিলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের অভিনেত্রী। উপায় না দেখে বাংলাদেশি ডেপুটি হাইকমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তিনি এই অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগের সঙ্গে তিনি সেইসব অশ্লীল মেসেজের স্ক্রিনশটও যুক্ত করেছেন। তবে তাকে বিরক্ত করা সেই বাংলাদেশি ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেননি শ্রাবন্তী। এমন আচরণে মানসিকভাবে খুব বিধ্বস্থ বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী।
কলকাতা থেকে ফোনে শ্রাবন্তী জানান, বছরখানেক ধরে বাংলাদেশের একটি নম্বর থেকে তাঁর কাছে অশ্লীল সব খুদে বার্তা পাঠানো হচ্ছে। আগে কিছু বিরতি দিয়ে পাঠানো হতো। এখন প্রায় প্রতিদিনই পাঠানো হচ্ছে। শ্রাবন্তী বলেন, ‘মাসখানেক ধরে বাংলাদেশের পরিচিতিজনদের মাধ্যমে ওই নম্বর ব্যবহারকারীকে বের করে মেসেজ পাঠানো বন্ধ করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু কাজ হয়নি। ইদানীং মেসেজ পাঠানোর মাত্রা বেড়ে গেছে। তাই বাধ্য হয়ে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অ্যাকশন নিতে ভারতে বাংলাদেশি ডেপুটি হাইকমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছি।’

কলকাতার ওই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমরা দুই বাংলার শিল্পীরা যখন ইন্দো-বাংলা চলচ্চিত্রের উন্নয়ন নিয়ে কাজ করছি, তখন এ ধরনের আচরণ খুবই হতাশাজনক। তা ছাড়া এভাবে বিরক্ত করতে থাকলে তো আমাদের বাংলাদেশে গিয়ে কাজ করা কঠিন হয়ে যাবে।’

হতাশার স্বরে তিনি বলেন, ‘ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রামে অনেক সময় বিরূপ মন্তব্য আসে, সেসব মেনে নেওয়া যায়। কিন্তু সরাসরি ফোনে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করে মেসেজ পাঠানো খুব অন্যায়। এটা মেনে নেওয়া যায় না।’

এ ব্যাপারে কলকাতার বাংলাদেশি উপহাইকমিশনে যোগাযোগ করা হলে এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, শ্রাবন্তীর লিখিত অভিযোগটি তাঁরা পেয়েছেন, যথাযথ ব্যবস্থা নিতে তাঁরা কাজ শুরু করেছেন। ইতিমধ্যে অভিযোগপত্রটি বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশে মোটামুটি জনপ্রিয় কলকাতার অভিনেত্রী শ্রাবন্তী। ২০১৬ সালে শাকিব খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে যৌথ প্রযোজনার ‘শিকারী’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি। কিছুদিন আগে ‘বিক্ষোভ’ নামে বাংলাদেশের আরেকটি ছবির শুটিং শেষ করেছেন তিনি। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ছবিটি।
২০১৯ সালে বাংলাদেশে মুক্তি পায় শ্রাবন্তী ও তাহসান খান অভিনীত ‘যদি একদিন’ সিনেমাটি। যে কারণে দুই বাংলাতেই বেশ আলোচিত শ্রাবন্তী।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!